NATIONAL
Prime Minister Sheikh Hasina said that by ensuring education, health and other basic rights for the large number of people in the world, they should be converted into public resources || প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিশ্বের বিপুল সংখ্যক জনগোষ্ঠীর জন্য প্রয়োজনীয় শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও অন্যান্য মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করার মাধ্যমে তাদেরকে জনসম্পদে রূপান্তর করতে হবে
সংবাদ সংক্ষেপ
জকিগঞ্জে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে এক কিশোরের মৃত্যু শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে সিকৃবি ছাত্রলীগের শোভাযাত্রা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর থেকে ৯৮৯০ পিস ইয়াবাসহ একজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব ফেসবুকে ও ইউটিউবে মুক্ত হলো শাল্লার তরুণ সাংবাদিক বিপ্লবের লেখা গান ঝুঁকিমুক্ত আর্থিক ব্যবস্থার লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু জীবন বীমা কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠা করেন : মেয়র শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে মহানগর আ লীগের দোয়া মাহফিল আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন সুনামগঞ্জ আসছেন শুক্রবার মাথা নত না করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে নিয়ে নিজেদের সিদ্ধান্তে অটল থাকি : শফিক চৌধুরী সুনামগঞ্জ পৌরসভা পরিচালিত বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ড্রেস প্রদান জুড়ীতে দুদিনব্যাপী মণিপুরী ফেস্টিভেল ও ইন্দো-বাংলা সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত বিপিজেএর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইউসুফকে সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের অভিনন্দন সিলেটে ওয়ার্ল্ডভিশন বাংলাদেশের শিশু ও যুবদের নিয়ে সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ সিলেটে ওয়ার্ল্ডভিশন বাংলাদেশের শিশু ও যুবদের নিয়ে সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ সিকৃবিতে এডভান্সড কৃষি গবেষণা শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন ২৩ মে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন : মাজার জিয়ারত করে আনহার মিয়ার প্রচারণা শুরু ইউপি চেয়ারম্যানদের জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় আরও সক্রিয় হতে হবে

৫০ হাজার পাউন্ডের প্রতিশ্রুতিতে নবউদ্যমে গ্রেটার সিলেট কাউন্সিল ইউকের যাত্রা শুরু

  • বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২৩

গত ২৪ অক্টোবর গ্রেটার সিলেট কাউন্সিল ইউকের সাবেক কেন্দ্রীয় ও রিজিয়নাল নেতৃবৃন্দ এবং সদস্যদের নিয়ে পূর্ব লন্ডনের নিউরোডে একটি হল রুমে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সংগঠনের পেট্রন ও সাবেক চেয়ারপার্সন ড হাসনাত এম হোসেন এমবিইর সভাপতিত্বে এবং সাবেক কেন্দ্রীয় জয়েন্ট সেক্রেটারি মোহাম্মদ মকিস মনসুর ও ড মুজিবুর রহমানের যৌথ পরিচালনায় এতে অতিথি ছিলেন গ্রেটার সিলেট কাউন্সিল ইউকের সাবেক পেট্রন ও কেন্দ্রীয় চেয়ারপার্সন কে এম আবুতাহের চৌধুরী, সাবেক কেন্দ্রীয় চেয়ারপার্সন নূরুল ইসলাম মাহবুব, সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আব্দুল ক্বাইউম কয়ছর, কমিউনিটি নেতা সিরাজ হক, সৈয়দ আমিনুল হক, ফয়জুর রহমান চৌধুরী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ মোস্তফা। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মাসুদ আহমদ, হারুনুর রশীদ, কাউন্সিলার ফুলজার আহমদ, মোহাম্মদ হাবিব, মাওলানা রফিক আহমদ, খান জামাল নূরুল ইসলাম, সিপার রেজাউল করিম, আশরাফ মিয়া, শাহজানুর রাজা, আজম আলী, গিয়াস উদ্দিন, সাংবাদিক রাকিব রুহেল, এনামুল হক, আব্দুল মালিক, আনোয়ার হোসেন, রকিবুর রহমান, আশরাফ মিয়া, এ বি রুনেল, লিলু মিয়া, বেলাল হোসেন, হাবিব রহমান, আব্দুল ওয়াহিদ বাবুল, সৈয়দ ইকবাল আহমেদ, জহির আক্তার আলী, ইকবাল আহমেদ, লালু মিয়া, রুহেল মিয়া, মোশাহিদ রহমান, সৈয়দ সায়েম করিম, আব্দুর রউফ, সৈয়দ সাইফুল আলম, এস কে সালাম, মাসুম উদ্দিন, আহবাব আহমেদ, আব্দুল মান্নান, চৌধুরী হাফিজ আহমেদ, নূরুল ইসলাম, বাচ্চু বখত, বদরুল হক মনসুর, তোফায়েল আহমেদ, শাজাহান শাওন, আব্দুল বাসিত রাফি, জাহাঙ্গীর আলম, রহুল আমিন, তোফায়েল আহমেদ, জুবের আলম, এস এম করিম, আব্দুল লতিফ, মোক্তার আহমেদ, মাসুদ উদ্দিন, জামাল আহমেদ, শিপলু আহমেদ চৌধুরী, এম এ শহীদ ও আনা মিয়া।
সভায় বক্তারা বলেন, ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠিত গ্রেটার সিলেট কাউন্সিল হয়ে উঠেছিল সিলেটবাসীর প্রাণের সংগঠন; কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়, সংগঠনের কিছু স্বার্থান্বেষীর একগুয়েমী, স্বেচ্ছাচারিতা, অগণতান্ত্রিক কাজ ও একতরফা নির্বাচন অনৈক্যের সৃষ্টি করে। ফলে সংগঠনিটি বৃহত্তর সিলেটবাসীর কল্যাণে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে ।
তারা অভিযোগ করেন, এই চক্রান্তকারী মহল সংগঠনের প্রতিষ্ঠাকাল থেকে শুরু করে সকল পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও মুরব্বিদের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে এবং সিলেটবাসীর আস্থা ও বিশ্বাস ধরে রাখতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়ে সংগঠনকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে।
গত এক বছর ধরে তারা কোনো আপস মীমাংসায় সম্মত না হয়ে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও নেতাদেরকে হয়রানি করছে বলেও বক্তারা উল্লেখ করেন।
সভায় বৃহত্তর সিলেটবাসীর কল্যাণে নবউদ্যমে সিলেটবাসীকে নিয়ে গ্রেটার সিলেট কাউন্সিলকে পুনর্গঠনের মাধ্যমে যুগোপযোগী করে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ।
এছাড়া সভায় সংগঠনের নাম, লোগো এবং গঠণতন্ত্র নিয়েও আলোচনা হয় ।
সভায় সংগঠনের অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখতে আগামী ৬ মাসের জন্য কমিউনিটি লিডার মোহাম্মদ মকিস মনসুরকে কনভেনার. মাসুদ আহমদকে কো-কনভেনার, ড মুজিবুর রহমানকে সদস্য সচিব ও আশরাফ মিয়াকে অর্থ সচিব করে ১০১ সদস্য আহ্বায়ক কমিটি ও ৩১ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা পরিষদের নাম ঘোষণা করা হয়।
এই কমিটি রিজিওনাল ও শাখা কমিটি গঠন, সদস্য সংগ্রহ অভিযান ও জাতীয় সম্মেলনের আয়োজন করবে।
সভায় সাধারণ সদস্য ফি ১০ পাউণ্ড ও লাইফ মেম্বার ফি ৫০০ পাউন্ড করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
আজীবন সদস্যদের ৫০ হাজার পাউন্ডের প্রতিশ্রুতির মাধ্যমে নবউদ্যমে গ্রেটার সিলেট কাউন্সিল ইউকের যাত্রা শুরু করার লক্ষ্যে সভায় আজীবন সদস্যপদের জন্য ১০০ জনের নাম তালিকাভুক্ত করা হয়।
সভায় ইসরাইলি-ফিলিস্তিনি যুদ্ধ বন্ধের আহবান, গাজায় গণহত্যার প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন এবং প্রবাসীদের হাই কমিশনের মাধ্যমে দ্রুত এনআইডি কার্ড প্রদান, পাওয়ার অব অ্যাটর্নির জটিলতা নিরসন ও বাংলাদেশে খাজনা প্রদানে প্রবাসীদের পাসপোর্টকে আইডি হিসাবে গ্রহণের দাবি জানানো হয় ।
কনভেনিং কমিটির কনভেনার মোহাম্মদ মকিস মনসুর সভায় তাকে এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব প্রদান করায় উপস্থিত সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সংগঠনের অগ্রযাত্রায় সকল রিজিয়নের সহযোগিতা কামনা করেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More

লাইক দিন সঙ্গে থাকুন

স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest