JUST NEWS
A TWO-DAY LONG BANGLADESH CULTURAL FESTIVAL HAS STARTED IN SYLHET UNDER THE INITIATIVE OF SHILPAKALA ACADEMY
সংবাদ সংক্ষেপ
মাদকসহ কোন অপকর্মে আপস নেই : শাল্লায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হৃদরোগ সম্পর্কে সচেতনতা প্রয়োজন : সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার দুর্গাপূজায় সার্বক্ষণিক জরুরি সেবা দিতে সিসিকের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু পূর্ব লন্ডনে ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট ইউকের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত সিলেটে জশনে জুলুছে ঈদ-এ মিলাদুন্নবী (দ) শোভাযাত্রা শুক্রবার গোয়াইনঘাট উপজেলা কৃষক দলের কর্মীসভা অনুষ্ঠিত সিলেটে কর্মসম্পাদন ব্যবস্থাপনা ও শুদ্ধাচার কৌশল নিয়ে মন্ত্রীপরিষদ সচিবের আলোচনা সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগ আহবায়ক চপলকে কারণ দর্শানোর নোটিশ জকিগঞ্জ ও কানাইঘাটে চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের সঙ্গে নাসিরের মতবিনিময় মাধবপুরে সার ও কীটনাশক দোকানে অভিযানে জরিমানা আদায় বিশ্বম্ভরপুরে বিনাধানের প্রচার ও সম্প্রসারণে মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত পোয়েটসপিডিয়া বাংলার কমিটি গঠন : নেতৃত্বে ৪ দেশের বাঙালি সিলেটে বাংলাদেশ ইয়ুথ ক্যাডেট ফোরামের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন সিলেট মহানগর বিএনপির ওয়ার্ড সম্মেলন শুরু হচ্ছে শুক্রবার থেকে হযরত শাহ পরাণের ৩ দিনব্যাপী বার্ষিক ওরস শনিবার থেকে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে মহানগর মৎস্যজীবী লীগের আলোচনা সভা

হবিগঞ্জে মন্দরী ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগের তদন্ত

  • শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তার আড়াই হাজার টাকা পাইয়ে দিতে ৫শ টাকা করে আদায়ের অভিযোগে হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার মন্দরী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে।
শনিবার দিনভর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম মন্দরী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে তদন্তকাজ পরিচালনা করেন।
তিনি অভিযোগকারী এবং চেয়ারম্যান শেখ শামছুল হকের বক্তব্য শুনেন। এসময় ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের মুরব্বি, যুবক, ইউপি সদস্য ও সদস্যাসহ সাবেক জনপ্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।
জহিরুল ইসলাম জানান, অভিযোগকারী ও অভিযুক্তদের বক্তব্য তিনি লিপিবদ্ধ করেছেন। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে উপজেলা প্রশাসন অভিযুক্ত চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে।
বানিয়াচঙ্গ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর চেয়ারম্যান শেখ সামছুল হকের বিরুদ্ধে মন্দরী ইউনিয়নের ১৪ জন অধিবাসী অভিযোগ দাখিল করেন।
অভিযোগকারীরা হলেন, তোতা মিয়া, কামাল মিয়া, ইলিয়াস মিয়া, সোয়াই মিয়া, আশিক মিয়া, আবিদুর রহমান, আঙ্গুরা খাতুন, আজিজুল মিয়া, আয়াত আলী, শাহেদ, আবুল কালাম, আবদাল মিয়া, কাজল মিয়া ও জহুর বানু।
তাদের অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ভাতার তালিকায় চেয়ারম্যান তাদের নাম তালিকাভুক্ত করেন। পরে তালিকায় ভুল হয়েছে জানিয়ে তাদেরকে ইউপি কার্যালয়ে যেতে বলা হয়। সেখানে প্রত্যেকের কাছ থেকে ৫শ টাকা করে আদায় করেন তিনি। যারা ভুল সংশোধনের জনে টাকা দেবে না, তাদের নাম তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার হুমকিও দেওয়া হয়।
এছাড়াও শেখ শামছুল হকের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অনেক নেতাও এই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ তুলেন।
অভিযোগ তদন্তের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More
স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest