হবিগঞ্জে গ্রেফতারের পর পুলিশ হেফাজতে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু

Published: 30. Sep. 2019 | Monday

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জে গ্রেফতারের পর পুলিশ হেফাজতে ফারুক মিয়া নামের এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। তার পরিবারের অভিযোগ, তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। অপরদিকে পুলিশ বলছে, দেয়াল টপকানোর সময় আহত হয়ে পরে সে মারা যায়। আর চিকিৎসক বলেছেন, মরদেহে আঘাতের চিহ্ন আছে। তবে ময়নাতদন্ত ছাড়া মৃত্যুর প্রকৃত কারণ বলা যাবেনা।
হবিগঞ্জ শহরের মোহনপুর এলাকার ফারুক মিয়া একই এলাকার আব্দুল মান্নানের নিকট থেকে ৬/৭ মাস আগে ১৫ হাজার টাকা সুদে ধার নিয়েছিল। এর বিপরীতে সে আব্দুল মান্নানকে ব্যাংকের দু’টি চেক দেয়। সুদ আসল মিলে টাকার অংক দাঁড়িয়েছে ৩৫ হাজারে। তবে ফারুক মিয়া ১৫ হাজার টাকা পরিশোধ করে। এরপরও আব্দুল মান্নান সুদের টাকার জন্য চেক দুটি দিয়ে দু’টি মামলা দায়ের করে বসে। এতে ফারুক মিয়ার ৩ মাস করে ৬ মাসের সাজা হয়। এর প্রেক্ষিতে রবিবার দিনগত রাতে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে রাতেই তাকে আহত অবস্থায় হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।
খবর পেয়ে সদর হাসপাতালে যান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা ও হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মিজানুর রহমান।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পৌর মেয়র বলেন, মরদেহে আঘাতের চিহ্ন দেখে মনে হচ্ছে, আঘাতের কারণেই মৃত্যু হয়েছে।
অন্যদিকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মিথুন রায় জানান, আঘাতের কারণে মৃত্যু নাও হতে পারে।
পুুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা বলেছেন, ময়নাতদন্তে নির্যাতনের প্রমাণ পাওয়া গেলে পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এদিকে নির্মাণ শ্রমিক ফারুক মিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় এলাকাবাসী বিক্ষোভ করেছে।

Share Button
May 2020
M T W T F S S
« Apr    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031

দেশবাংলা