JUST NEWS
ATTEMPTS TO DESTROY NON-COMMUNAL CONSCIOUSNESS ARE MAJOR OBSTACLES IN THE WAY OF DEVELOPMENT AND PROGRESS: VC OF METROPOLITAN UNIVERSITY
সংবাদ সংক্ষেপ
সাংস্কৃতিক জাগরণে সকল অপশক্তিকে প্রতিহত করে ‘স্মার্ট’ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার জামেয়া আমিনিয়া মংলিপার মাদরাসার ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত লাউয়াইতে তৈমুর খান বাদশাই স্মৃতি মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু লন্ডনে ‘রাউই’ নাশীদ ব্যান্ডের অভিষেক ও সাংস্কৃতিক সন্ধা অনুষ্ঠিত কাজিরবাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে সিলেট মহানগর জামায়াত গোয়াইনঘাটে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ও ৮ জুয়াড়ি গ্রেফতার জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস উপলক্ষ্যে চিত্রাঙ্কন বইপাঠ ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতা GDF distributed winter clothes among disabled people দেড়শতাধিক প্রতিবন্ধীর মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলো জিডিএফ সিলেটে গ্রীন জেমস ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজে পুুরস্কার বিতরণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্মচারীদের মাঝে আদর্শ শিক্ষক ফোরামের শীতবস্ত্র বিতরণ অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিনষ্টের অপচেষ্টা উন্নয়ন ও প্রগতির পথে বড় বাধা : ড জহিরুল হক ফরহাদ ও উমেদের মামলা প্রত্যাহার দাবি স্বেচ্ছাসেবক দল নেতাদের ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন রাষ্ট্রদূতের আলীম ইন্ডাস্ট্রিজ কারখানা পরিদর্শন মাধবপুরে চোরাই মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ সহ পাচারকারী গ্রেফতার সুনামগঞ্জের বেদে পল্লীতে প্রশাসনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ

সিলেট মহানগরীর ছড়া ও খাল রক্ষায় সর্ববৃহৎ প্রকল্প একনেকে অনুমোদিত

  • রবিবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৬

বিশেষ প্রতিবেদক : সিলেট মহানগরীর ছড়া ও খাল রক্ষায় সরকার ২৩৬ কোটি ৪০ লাখ টাকার একটি প্রকল্প গ্রহণ করেছে। এর আগে এই কাজে এক সাথে এত টাকা কখনো বরাদ্দ হয়নি।
বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত একনেকের সভায় প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়। এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো শুধুমাত্র ছড়া ও খাল রক্ষায় এতবড় প্রকল্প পেলো সিলেট সিটি কর্পোরেশন-সিসিক। ফলে ছড়া ও খাল রক্ষার পাশাপাশি এগুলো দৃষ্টিনন্দন করার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।
এই প্রকল্প বাস্তাবয়নে সরকার ২০০ কোটি ৯৪ লাখ টাকা এবং সিসিক নিজস্ব তহবিল থেকে ৩৫ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ব্যয় করবে।
প্রকল্পের আওতায় সিলেটের ১৩টি ছড়ার ২৬.৯৬ কিলোমিটার আরসিসি রিটেইনিং ওয়াল, ৫ কিলোমিটার ইউটাইপ ড্রেন ও সাড়ে ৩ কিলোমিটার ওয়াকওয়ে নির্মাণ এবং ১০ কিলোমিটার ছড়া ও খাল খনন করা হবে।
এছাড়াও এই প্রকল্পের আওতায় ৯টি ইকুইপমেন্ট ক্রয় করা হবে। এর মধ্যে থাকবে এমপিএসআইবিআই এস্কাভেটর, যা উভয়চর এবং এই এস্কাভেটর দিয়ে নদী খননও করা যাবে।
প্রকল্পের আওতাভুক্ত ছড়া ও খাল গুলো হচ্ছে মালনীছড়া, গোয়ালীছড়া, গাভীয়ার খাল, মুগনীছড়া, কালীবাড়ী ছড়া, হলদিছড়া, যুগনীছড়া, ধোপাছড়া, বুবিছড়া, বাবুছড়া, রত্নার খাল, জৈন্তার খাল ও বসুর খাল।
২০১৪ সালের শেষের দিকে প্রকল্পটি প্রণয়ন করার পর বিভিন্ন ধাপ অতিক্রম করে পাশ হলো। ২০১৭ সালের জানুয়ারি মাসে এর বাস্তবায়ন কাজ শুরু হয়ে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যেই কাজ সমাপ্ত করা হবে বলে সিসিকের প্রকৌশল শাখা জানিয়েছে।
এই প্রকল্পকে যুগান্তকারী আখ্যায়িত করে সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব জানান, এ ক্ষেত্রে মূল কৃতিত্ব অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের। তার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়ই সিসিক এই প্রকল্প পেয়েছে।
তিনি আরও জানান, একনেকের সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই প্রকল্পের আওতায় সিলেটের ছড়া ও খাল উদ্ধার করে তা রক্ষায় দ্রুততার সাথে কাজ করার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশ দিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More

লাইক দিন সঙ্গে থাকুন

স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest