JUST NEWS
DURGA PUJA THE BIGGEST FESTIVAL OF TRADITIONAL BENGALIS ACROSS THE COUNTRY INCLUDING SYLHET HAS STARTED.
সংবাদ সংক্ষেপ
শ্রীমঙ্গলে কুমারী পূজার আনন্দে মেতেছিলেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা মধ্যনগরে বংশীকুণ্ডা ইউনিয়ন যুবদলের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদমিনার পুত-পবিত্রতা অক্ষুন্ন রেখেই মাথা উঁচু করে দাড়িয়ে থাকলো Kumari Puja held at Habiganj Ramakrishna Mission and Sewashram সুনামগঞ্জে দুর্গাবাড়িতে ভক্তদের পুষ্পাঞ্জলি অর্পণ ও মহাপ্রসাদ বিতরণ মাধবপুরে দুর্গাপূজার মহাঅষ্টমীতে মন্দিরগুলোতে ভক্তদের ঢল মহাঅষ্টমীতে হবিগঞ্জ রামকৃষ্ণ মিশন ও সেবাশ্রমে কুমারী পূজায় দেবীরূপে ৮ বছরের মিষ্টু সিকৃবিতে উপাচার্যের অতিরিক্ত দায়িত্ব গ্রহণ করলেন ড মেহেদী হাসান কাউন্সিলর তৌফিক বকস লিপনের উদ্যোগে শাড়ি ও নগদ অর্থ বিতরণ সিসিকের নবগঠিত ওয়ার্ডগুলোর জনদুর্ভোগ লাঘবের আহ্বন পঞ্চগড়ে নৌকাডুবিতে নিহতদের পরিবারকে মৌলভীবাজার দুর্গাবাড়ির আর্থিক সহায়তা সিলেট প্রিমিয়ার ডিভিশন ফুটবল লীগ ২০২২-২৩ শুরু ৬ অক্টোবর || অংশ নিচ্ছে ১০টি দল জামালগঞ্জে বিভিন্ন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করলেন এমপি রতন হবিগঞ্জে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব হাসানুজ্জামান মাধবপুরে বৃষ্টি উপেক্ষা করে সপ্তমি পূজা দেখতে ভক্তদের ভিড় মৌলভীবাজারে ১ হাজার ৭টি পূজামণ্ডপ নিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসব

সিলেটে কাঠের গুড়া ধানের কুড়া ও চালের সঙ্গে রঙ মিশিয়ে মসলা তৈরি

  • বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : অবিশ্বাস্য মনে হলেও সত্য যে, সিলেটে কাঠের গুড়ার সঙ্গে লাল রঙ মিশিয়ে মরিচের গুড়া, ধানের কুড়ার সঙ্গে বাসন্তি রঙ মিশিয়ে হলুদের গুড়া আর চালের গুড়ার সঙ্গে বাদামি রঙ মিশিয়ে ধনিয়ার গুড়া তৈরি করা হয়। মারাত্মক ক্ষতিকারক এই গুড়াগুলো ‘মসলা’ পরিচয়ে যাচ্ছে মানুষের পেটে। ফলে জনস্বাস্থ্য চরম হুমকির মুখে পড়েছে।
আরও ভয়ংকর তথ্য হচ্ছে, রাতভর চলে এই ভেজাল মসলা তৈরি। ভোররাতে বড় ট্রাকে আর মিনি ট্রাকে বোঝাই করে পাঠিয়ে দেওয়া হয় সিলেট বিভাগের অন্যান্য জেলায়। সরকারি গোয়েন্দা সংস্থা আর আইনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে একটি জীর্ণ-শীর্ণ টিনের ঘরে প্রায় ৫ বছর ধরে এই অপকর্ম চলছিল।
গোপন সূত্রে খবর পেয়ে জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর ও র‌্যাব-৯ বৃহস্পতিবার দুপুরে যৌথ অভিযান চালায় সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালাবাজারের ঝর্ণা মসলা মিল নামের এই ভেজাল মসলা তৈরির কারখানাতে। তবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার উপস্থিতি টের পেয়ে পেছনের ডোবায় নেমে অধিকাংশ শ্রমিক সাঁতরে পালিয়ে যায়; কিন্তু ধরা পড়ে যায় ফজলুল হক নামের এক শ্রমিক, যার স্বীকারোক্তিতে সব বেরিয়ে আসে।
এ সময় ভেজাল মসলা তৈরির কারখানার মালিকের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি সিলেটের বাইরে আছেন জানিয়ে তার ভাইকে অপকর্মস্থলে পাঠান। তার উপস্থিতিতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪১ ও ৪২ ধারায় ৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
পাশাপাশি ভবিষ্যতে এখানে আর কোন ভেজাল মসলা উৎপাদন করা হবে না মর্মে মুচলেকা নেওয়া হয়।
অভিযান চলাকালে মসলা তৈরির কারখানাটিতে ২০০ বস্তা ভেজাল মসলা ও ১২ ব্যাগ ক্ষতিকর রাসায়নিক রঙ পাওয়া যায়। এলাকাবাসীর উপস্থিতে সকল মসলা ও রঙ ধ্বংস করা হয়।
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো আমিরুল ইসলাম মাসুদের নেতৃত্বে পরিচালিত এ অভিযানে সার্বিক সহযোগিতা করে র‌্যাব-৯ এর একটি টহল দল।
এ সময় অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে ভোক্তা অধিকার বিষয়ক সচেতনতামূলক লিফলেট ও পাম্পলেট বিতরণ করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More
স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest