NATIONAL
On the occasion of Eid-ul-Azha, RAB's intelligence surveillance is continuing at every station to ensure the safety of the Eid journey of people at home || ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষের ঈদযাত্রা নিরাপদ করতে প্রতিটি স্টেশনে র‌্যাবের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রয়েছে
সংবাদ সংক্ষেপ
সিলেট আবার বন্যা কবলিত || মহানগরীতে জলাবদ্ধতায় ঈদের জামাত ও কোরবানি ব্যাহত মৌলভীবাজারে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি উপক্ষো করে পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপন সিলেট চেম্বারের প্রাক্তন সভাপতি রাজ্জাক চৌধুরীর স্ত্রীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ গোয়াইনঘাটে পানিবন্দি মানুষের মাঝে পুলিশের ঈদ উপহার বিতরণ সিলেটে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপন || ব্যাহত হচ্ছে কোরবানি শাল্লায় বীর মুক্তিযোদ্ধা জমিলা খাতুনের ইন্তেকাল || রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ৩য় ধাপে নির্বাচিতদের শপথ গ্রহণ সিসিকের প্রথম মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত সিলেটে এবার ট্রাকভর্তি পাথরের নিচ থেকে পৌণে ১২ লাখ টাকার চিনি উদ্ধার আটক ২ ত্রাণ নিয়ে নিজের নির্বাচনী এলাকায় বন্যার্তদের ঘরে ঘরে প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী শাল্লায় শিক্ষা ও চিকিৎসায় সহযোগিতার হাত বাড়ালেন প্রকৌশলী সৌমেন সেন হবিগঞ্জে জমে উঠেছে কোরবানির পশুর হাট || দাম উঠছে ৪ লাখের উপরে মাধবপুরে কোরবানির পশুর হাটে ব্যস্ত সময় পার করছেন ক্রেতা-বিক্রেতারা কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযানে ২৮৮ বোতল ভারতীয় মদসহ গ্রেফতার ১ কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিতদের দেশে বা বিদেশে চাকরির অভাব নেই : প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী কার্যকর হয়নি রাজনের খুনিদের মৃত্যুদণ্ড || পরিবার পায়নি অর্থমন্ত্রীর ৫ লাখ টাকা

সিকৃবিতে ওয়াপসার কর্মশালায় তথ্য প্রকাশ : সিলেটে ডিমের ঘাটতি দৈনিক ২৫ লাখ

  • শনিবার, ১৮ মে, ২০২৪

বিশেষ প্রতিবেদক, সিকৃবি : সিলেট বিভাগে দৈনিক ২৫ লাখ ডিমের ঘাটতি রয়েছে।
শনিবার, ১৮ মে (৪ বৈশাখ) সকালে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়-সিকৃবিতে ওয়ার্ল্ডস পোল্ট্রি সায়েন্স এসোসিয়েশন-ওয়াপসা বিবির বিভাগীয় কর্মশালায় এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।
কর্মশালায় গবেষকরা জানান, সিলেট অঞ্চলে হাঁস ও মুরগির ডিমের দৈনিক চাহিদা প্রায় ২৯ লাখ; কিন্তু ডিম উৎপাদনের সক্ষমতা এখানে ৪ লাখ। অর্থাৎ ২৫ লাখ ডিম বাইরে থেকে এনে চাহিদা মেটাতে হচ্ছে।
কর্মশালায় বক্তারা বলেন, হাঁসের ডিমের পুষ্টিগুণ মুরগির ডিমের চেয়ে বেশি। এতে অন্য কোনো এলার্জেন্স নেই। দেশের ৪৫ ভাগ মানুষ প্রাণীজ প্রোটিনের উপর নির্ভরশীল। প্রাণীজ প্রোটিনের অন্যতম উৎস হলো পোল্ট্রি শিল্প। অথচ সিলেট অঞ্চলে লেয়ার খামার ও পোল্ট্রি হ্যাচারি নেই বললেই চলে।
তারা বলেন, সিলেট অঞ্চলে কর্মক্ষম যুব সমাজকে কাজে লাগানোর পাশাপাশি গ্রামীণ নারীদের পোল্ট্রি শিল্পে নিয়োজিত করে এ অঞ্চলে মাংস ও ডিমের চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হবে।
বক্তারা অভিমত রাখেন. পোল্ট্রি শিল্পেও কৃষির মতো কমার্শিয়াল বিদ্যুৎ বিলের পরিবর্তে আবাসিক বিল প্রদান করতে হবে। একই সঙ্গে উদ্যোক্তা গড়ে তুলতে স্বল্প সুদে ব্যাংক ঋণের সুবিধা বাড়াতে হবে।
সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি, এ্যানিমেল ও বায়োমেডিক্যাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন প্রফেসর ড মো ছিদ্দিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন সিকৃবির উপাচার্য প্রফেসর ডা মো জামাল উদ্দিন ভুঞা। প্রফেসর ড নাসরিন সুলতানা লাকীর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ওয়াপসা বিবির সহসভাপতি প্রফেসর ড মো বাহানুর রহমান, প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় চিফ এপিডেমিউলজিস্ট ডা আছির উদ্দিন ও ওয়াস্টার পোল্ট্রির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইমরান হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ওয়াপসা বিবির সদস্য প্রফেসর ড মো ইলিয়াস হোসেন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড এটিএম মাহবুুব-ই-ইলাহী ও প্রফেসর ড এম রাশেদ হাসনাত।
কর্মশালায় সর্বসম্মত অভিমত উঠে আসে, সিলেটের হাওর অঞ্চলে হাঁস পালনের ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে। এই সম্ভাবনাকে ব্যক্তি পর্যায়ে কাজে লাগানো যায়। সিলেট জেলায় সোনালী জাতের মুরগির চাহিদা রয়েছে এক লাখ। অথচ স্থানীয়ভাবে সরবরাহ হচ্ছে ১০ হাজারের মতো।
এছাড়াও কর্মশালালায় বায়ু নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিতের পাশাপাশি প্রান্তিক চাষী পর্যায় থেকে বাজার পর্যন্ত ডিমের দামের বৈষম্য কমানোর তাগিদ দেওয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More

লাইক দিন সঙ্গে থাকুন

স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest