রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী লাঞ্চিতের নিন্দা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নেটওয়ার্কের

Published: 29. Sep. 2021 | Wednesday

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের ১৬ শিক্ষার্থীর চুল কেটে লাঞ্চিত করার ঘটনায় দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সম্মিলিত প্লাটফর্ম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নেটওয়ার্ক তীব্র নিন্দা করে এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে
সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের প্রথম বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষার হলে প্রবেশের সময় এই লাঞ্চনার ঘটনা ঘটিয়েছেন এই বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহকারী প্রক্টর ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন। এ সময় বিভাগের শিক্ষক সহকারী প্রক্টর রাজিব অধিকারী এবং জান্নাতুল ফেরদৌস মুনিও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।
বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নেটওয়ার্কের বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশের সংবিধান কিংবা কোন আইনেই একজন নাগরিকের চুল কিংবা পরিচ্ছদের উপর কোনরূপ বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়নি বরং সংবিধানের ৩১ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘…আইনানুযায়ী ব্যতীত এমন কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা যাইবে না, যাহাতে কোন ব্যক্তির জীবন, স্বাধীনতা, দেহ, সুনাম বা সম্পত্তির হানি ঘটে।’
আর ৩২ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে ‘আইনানুযায়ী ব্যতীত জীবন ও ব্যক্তি-স্বাধীনতা হইতে কোন ব্যক্তিকে বঞ্চিত করা যাইবে না।’
বাংলাদেশ দণ্ডবিধি ৩৪১ ধারা অনুসারে ব্যক্তির স্বাধীন চলাচলে হস্তক্ষেপ ও বাধা প্রদানকে অপরাধ গণ্য করা হয়। অথচ রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ব্যক্তিবর্গই দেশের সংবিধান ও আইনের তোয়াক্কা না করে শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ, শারীরিক-মানসিকভাবে লাঞ্চিত করা ও সামাজিক মর্যাদাহানির মত ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছেন৷ উপরন্তু এই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী নাজমুল হাসান তুহিনকে বহিষ্কারের হুমকি দেন সহকারী প্রক্টর ফারহানা ইয়াসমিন, যার জের ধরে এই শিক্ষার্থী আত্মহত্যার চেষ্টা করেন৷ ফলে একজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে আত্মহত্যায় প্ররোচিত করার মত অপরাধও এখানে সংঘটিত হয়েছে৷
বিবৃতিতে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সাথে এমন ন্যাক্কারজনক আচরণ কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়৷
বিবৃতিতে অবিলম্বে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬ শিক্ষার্থীকে লাঞ্চিত করার ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের স্থায়ী বহিষ্কার, আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ ও ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত স্বাধীনতা ও গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিতের দাবি জানানো হয়।

Share Button
October 2021
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031