JUST NEWS
ATTEMPTS TO DESTROY NON-COMMUNAL CONSCIOUSNESS ARE MAJOR OBSTACLES IN THE WAY OF DEVELOPMENT AND PROGRESS: VC OF METROPOLITAN UNIVERSITY
সংবাদ সংক্ষেপ
জামেয়া আমিনিয়া মংলিপার মাদরাসার ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত লাউয়াইতে তৈমুর খান বাদশাই স্মৃতি মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু লন্ডনে ‘রাউই’ নাশীদ ব্যান্ডের অভিষেক ও সাংস্কৃতিক সন্ধা অনুষ্ঠিত কাজিরবাজারে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে সিলেট মহানগর জামায়াত গোয়াইনঘাটে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ও ৮ জুয়াড়ি গ্রেফতার জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস উপলক্ষ্যে চিত্রাঙ্কন বইপাঠ ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতা GDF distributed winter clothes among disabled people দেড়শতাধিক প্রতিবন্ধীর মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করলো জিডিএফ সিলেটে গ্রীন জেমস ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজে পুুরস্কার বিতরণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্মচারীদের মাঝে আদর্শ শিক্ষক ফোরামের শীতবস্ত্র বিতরণ অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিনষ্টের অপচেষ্টা উন্নয়ন ও প্রগতির পথে বড় বাধা : ড জহিরুল হক ফরহাদ ও উমেদের মামলা প্রত্যাহার দাবি স্বেচ্ছাসেবক দল নেতাদের ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন রাষ্ট্রদূতের আলীম ইন্ডাস্ট্রিজ কারখানা পরিদর্শন মাধবপুরে চোরাই মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ সহ পাচারকারী গ্রেফতার সুনামগঞ্জের বেদে পল্লীতে প্রশাসনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ বাংলাদেশ কাস্টমস আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে দেশীয় অবস্থান সুসংহতকরণে কাজ করছে

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় হবিগঞ্জের দুই সাংবাদিকের জামিন মঞ্জুর

  • মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২২

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার সাবেক জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলমের দায়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় হবিগঞ্জের দুই সাংবাদিক চৌধুরী মাসুদ আলী ফরহাদ ও বদরুল আলমের জামিন মঞ্জুর হয়েছে।
সোমবার সকালে সিলেট সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো আবুল কাশেম তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।
সাংবাদিকদের পক্ষে মামলার শুনানিতে অংশ নেন অ্যাডভোকেট মার্জিনা আমিন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট সামিউল হক ও অ্যাডভোকেট দেওয়ান মিনহাজ গাজী।
হবিগঞ্জের বানিয়াচং ও নবীগঞ্জ উপজেলায় কর্মরত অবস্থায় বিস্তর অভিযোগ উঠে জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলমের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় ও দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকে অভিযোগও দেন ৮৯ জন ভুক্তভোগী। এছাড়া তিনি বানিয়াচং উপজেলায় দায়িত্ব পালনের সময়ে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলেও অভিযোগ করা হয়।
মোহাম্মদ আলম দীর্ঘদিন এক কর্মস্থলে চাকরির সুবাদে বিভিন্ন দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে গেছেন, এমন অভিযোগে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ পায়। এরপর তিনি হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে কয়েকজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার আবেদন করেন; কিন্তু এখতিয়ার বহির্ভূত হওয়ায় বিচারক মামলাটি খারিজ করে দেন।
পরবর্তী সময়ে মোহাম্মদ আলম ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা করেন। এতে আসামি করা হয় মাছরাঙা টেলিভিশনের হবিগঞ্জ প্রতিনিধি চৌধুরী মো মাসুদ আলী ফরহাদ ও বাংলানিউজের ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট বদরুল আলমসহ কয়েকজনকে। এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সিআইডি সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুনালে অনুসন্ধান প্রতিবেদন দাখিল করে।
এই মামলা দায়ের হলে হবিগঞ্জের সাংবাদিক সমাজসহ সর্বস্তরের মানুষ তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানান।
দুর্নীতির বিস্তর অভিযোগ উঠার পর মৎস্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলমকে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলায় বদলি করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More

লাইক দিন সঙ্গে থাকুন

স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest