JUST NEWS
CORONA UPDATE IN SYLHET DIVISION ON AUGUST 06 : TILL 8 AM SAMPLE TEST SYLHET 67 SUNAMGANJ 0 MOULVIBAZAR 15 HABIGANJ 7>IDENTIFIED SYLHET 5 SUNAMGANJ 0 MOULVIBAZAR 4 HABIGANJ 1<>RATE 11.24<>RECOVERY SYLHET 14 SUNAMGANJ 0 MOULVIBAZAR 0 HABIGANJ 0<>DEATH 0
সংবাদ সংক্ষেপ
আওয়ামী লীগ আর কত লাশ চায় : জানতে চাইলেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী হবিগঞ্জে বৃক্ষরোপণ অভিযান ও জেলা বৃক্ষমেলা শুরু শাল্লায় সিলেট বিভাগীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের পরিচালক স্মৃতি-৭১ আত্মদানকারী পুলিশ সদস্যসহ নাম না জানা শহীদদের চিরস্মরণীয় করে রাখবে : ডিআইজি মাধবপুরে জন্মনিবন্ধন নিশ্চিতকরণে ধাত্রীদের নিয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা লাখাইয়ে শিশুদের ঝগড়ার জের ধরে সংঘর্ষ : বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট সুনামগঞ্জে ভাইয়ের হত্যাকারীদের শাস্তি দাবি প্রবাসী ভাইবোনদের সরকার দিনের আলোকে ভয় পায় বলে জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে রাতের আঁধারে লিভার রোগের চিকিৎসায় স্টেমসেল থেরাপি নিয়ে ভারতে ডা স্বপ্নীল ড আবুল ফতেহ ফাত্তাহ সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে শেখ কামাল স্মৃতি সংসদ জেলা শাখার বৃক্ষরোপণ ও দোয়া মাহফিল গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসে বঙ্গমাতা ও শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উদযাপন সিসিক উদযাপন করলো শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী শেখ কামালের জন্মদিনে আলোকিত যুব সমাজকল্যাণ সংস্থার বৃক্ষরোপণ শেখ কামালের জন্মদিন উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের দোয়া মাহফিল শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দক্ষিণ সুরমায় ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প

বঞ্চিত মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম কখনো বৃথা যায় না

  • মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

ইব্রাহীম চৌধুরী খোকন, লন্ডন : বঞ্চিত মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম কখনো বৃথা যায় না। আন্দোলন সংগ্রামে আপোষহীন থেকে যারা নিজেদের বিপ্লবী জীবনকে উৎসর্গ করে যান মানুষ কখনও তাদের ফিরিয়ে দেয়নি। এছাড়া আদর্শিক সংকটে চরম বিশ্ব বাস্তবতায় বস্তুবাদের ধারণাকে শাণিত করতে হবে। চলমান বাস্তবতাকে ধারণ করে প্রগতিশীল লোকজনকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বঞ্চিত মানুষের অধিকার আদায়ের আন্দালন বেগবান করতে হবে।
বীর মুক্তিযোদ্ধা সত্তর ও আশির দশকের সম্ভাবনাময় প্রগতিশীল সংগঠক অকাল প্রয়াত ম আ মুক্তাদিরের স্মরণসভায় বক্তারা এ কথা বলেছেন।
ম আ মুক্তাদির স্মৃতি কল্যাণ ট্রাস্ট্র রবিবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের জ্যামাইকার তাজমহল রেস্টুরেন্টে ম আ মুক্তাদিরের মৃত্যুবাষির্কী উপলক্ষে এ স্মরণসভার আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন সিলেট পৌরসভার সাবেক কমিশনার ও প্যানেল চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ফখরুল ইলসাম খান। সাংবাদিক ইব্রাহীম চৌধুরী খোকনের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন ট্রাস্টি শাহাব উদ্দীন, মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল করিম, গণফোরামের কেন্দ্রীয় নেতা আইনজীবী শেখ আকতারুল ইসলাম, ইয়ামিন রশীদ, নাজমুল ইসলাম চৌধুরী, অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান, গাজী শামসুদ্দিন, অ্যাডভােকেট বিমান দাস, আক্কাস উদ্দিন আহমেদ, তাজুল ইসলাম, জসিম উদ্দিন, আবুল কালাম, আবদুল মালেক খান লায়েক, কবি আব্দুস শহীদ, আবদুল মোমিন, ইশতিহাক চৌধুরী, সোহেল চৌধুরী, আবুল কালাম আজাদ, নাজিম আহমেদ, আবদুর রহিম, দেওয়ান শাহেদ চৌধুরী প্রমুখ।
বক্তারা আরো বলেন, বাংলাদেশে বাম বিভ্রান্তির চরম মাশুল দিতে হয়েছে অধিকারহারা মানুষকে। পাশাপাশি মাঠ পর্যায়ের অনেক তরুণ তাদের সর্বস্ব হারিয়েছেন সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য। ম আ মুক্তাদির ছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম এক সংগঠক। অসীম সাহস নিয়ে অল্প বয়সে দেশ স্বাধীন করার জন্য অস্ত্র হাতে বেরিয়ে পড়েছিলেন তিনি। স্বাধীন বাংলাদেশ বৈষ্যমহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়া যুবকদের মধ্যেও উজ্জ্বল নাম ছিল ম অ মুক্তাদির।
বক্তারা বলেন, একজন মুক্তিযোদ্ধার নামে তার গ্রামের বাড়ি সিলেটের কদমতলিতে সড়কের নাম ফলক প্রতিক্রিয়াশীলরা উঠিয়ে দিয়েছে।
তারা বর্তমান মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সরকারের কাছে নামফলকটি পুনস্থাপনের জোর দাবি জানান।
ম আ মুক্তিদের স্মৃতি রক্ষার নামে প্রগতিশলী এবং অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে শাণিত করার বিষয়টি সভায় উঠে আসে।
ম আ মুক্তাদিরের মৃত্যুর ১৯ বছর পর নিউইয়র্কে আয়োজিত স্মরণসভায় আশপাশের অঙ্গরাজ্য থেকে তার সহযোদ্ধা ও অনুরাগীরা অংশ নেন।
স্মরণসভায় তাৎক্ষণিকভাবে ম আ মুক্তাদির স্মৃতি কল্যাণ ট্রাস্টকে বেগবান করার জন্য ২০ জন ট্রাস্টি জনপ্রতি ১৫০ ডলার করে অনুদান প্রদান করেন।
প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি শাহাব উদ্দীন সভায় জানান, প্রবাসে বসবাসরত প্রগতিশীল চিন্তার যে কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান এ কল্যাণ ট্রাস্টে মাত্র ১৫০ ডলার দিয়ে আজীবন ট্রাস্টি সদস্য হতে পারবেন।
এছাড়াও এই মহতী উদ্যোগে যে কোন ধরনের সহযোগিতা ও পরামর্শ দেয়ার জন্য আহবান জানানো হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিউইয়র্ক সফরসঙ্গী হয়ে আসা ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড ধীরেন সিং এবং কেন্ত্রীয় নেতা কমরেড বিমল বিশ্বাসও স্মরণসভায় যোগ দিয়ে ম আ মুক্তাদিরের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানান।
ম আ মুক্তাদির স্মরণে ইস্ট লন্ডনেও এক স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সাবেক ছাত্রনেতা গয়াছুর রহমান গয়াছ। আবদুল মালিক খোকনের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট সাংবাদিক নজরুল ইসলাম বাসনসহ নেতৃবৃন্দ।
বক্তারা বলেন, মৃত্যুর প্রায় দুই দশক পরই একজন মুক্তিযোদ্ধা নাম মুছে যাওয়ার পরিণাম হবে ভয়াবহ। পরবর্তী প্রজন্মের প্রতি দায়বদ্ধতার জন্য তাদের কর্ম এবং আত্মত্যাগকে নিয়ে সরকারকে উদাসীন থাকলে চলবে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More
স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest