JUST NEWS
CORONA UPDATE IN SYLHET DIVISION ON AUGUST 06 : TILL 8 AM SAMPLE TEST SYLHET 67 SUNAMGANJ 0 MOULVIBAZAR 15 HABIGANJ 7>IDENTIFIED SYLHET 5 SUNAMGANJ 0 MOULVIBAZAR 4 HABIGANJ 1<>RATE 11.24<>RECOVERY SYLHET 14 SUNAMGANJ 0 MOULVIBAZAR 0 HABIGANJ 0<>DEATH 0
সংবাদ সংক্ষেপ
আওয়ামী লীগ আর কত লাশ চায় : জানতে চাইলেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী হবিগঞ্জে বৃক্ষরোপণ অভিযান ও জেলা বৃক্ষমেলা শুরু শাল্লায় সিলেট বিভাগীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের পরিচালক স্মৃতি-৭১ আত্মদানকারী পুলিশ সদস্যসহ নাম না জানা শহীদদের চিরস্মরণীয় করে রাখবে : ডিআইজি মাধবপুরে জন্মনিবন্ধন নিশ্চিতকরণে ধাত্রীদের নিয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা লাখাইয়ে শিশুদের ঝগড়ার জের ধরে সংঘর্ষ : বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট সুনামগঞ্জে ভাইয়ের হত্যাকারীদের শাস্তি দাবি প্রবাসী ভাইবোনদের সরকার দিনের আলোকে ভয় পায় বলে জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়েছে রাতের আঁধারে লিভার রোগের চিকিৎসায় স্টেমসেল থেরাপি নিয়ে ভারতে ডা স্বপ্নীল ড আবুল ফতেহ ফাত্তাহ সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে শেখ কামাল স্মৃতি সংসদ জেলা শাখার বৃক্ষরোপণ ও দোয়া মাহফিল গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসে বঙ্গমাতা ও শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উদযাপন সিসিক উদযাপন করলো শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী শেখ কামালের জন্মদিনে আলোকিত যুব সমাজকল্যাণ সংস্থার বৃক্ষরোপণ শেখ কামালের জন্মদিন উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের দোয়া মাহফিল শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দক্ষিণ সুরমায় ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প

প্রথম দিনেই আড়াই হাজার ব্যানার ফেস্টুন অপসারণ করেছে সিসিক

  • মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

সিলেট মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে লাগানো ব্যানার, ফেস্টুন ও বিলবোর্ড অপসারণে আবারও অভিযান শুরু করেছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন-সিসিক। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৩টা থেকে এই অভিযান শুরু করা হয়। রাত ১০টা পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকে।।
এই অভিযানে প্রায় আড়াই হাজার ব্যানার ও ফেস্টুন অপসারণ করা হয় বলে সিসিক সূত্রে জানা গেছে।
সুরমা মার্কেট পয়েন্ট থেকে শুরু হয় অভিযান। এরপর পর্যায়ক্রমে বন্দরবাজার, জিন্দবাজার ও চৌহাট্টা পয়েন্ট হয়ে রিকাবীবাজার পয়েন্ট পর্যন্ত অপসারণ কাজ চলে। পরবর্তী সময়ে মহানগরীর অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ এলাকায়ও অভিযান পরিচালনা করা হবে। সিটি কর্পোরেশনের ১৩ জন কর্মী এবং একাধিক ট্রাক এই কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবীব বলেন, কিছুদিন পরপর ব্যানার-ফেস্টুন অপসারণ করার পরও দেখা যায় আবারও যত্রতত্র ব্যানার-ফেস্টুন লাগানো হচ্ছে। বারবার অপসারণ করলেই এ সমস্যার সমাধান হবে না। মহানগরের সৌন্দর্য রক্ষায় নগরবাসীকে সচেতন হতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More
স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest