নির্ধারিত সময়ের আগেই মহানগরী থেকে কুরবানির বর্জ্য অপসারণ করলো সিসিক

Published: 03. Aug. 2020 | Monday

কুরবানির পশুর হাট ও পশু জবাইয়ের বর্জ্য অপসারণে সিলেট সিটি করপোরেশন সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে পেরেছে। এবারো প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ঈদুল আজহার দিন ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই মহানগরীকে বর্জ্য মুক্ত করা হয়।
সিসিকের জনসংযোগ বিভাগ জানায়, কুরবানির বর্জ্য অপসারণের লক্ষ্যে ঈদের দিন সকাল ৬টা থেকে কয়েক স্তরে ১২শ পরিচ্ছন্নতাকর্মী দায়িত্ব পালন করেন মহানগরীজুড়ে। লক্ষ্য অর্জনে বর্জ্য অপসারণ শেষ করতে মহানগরীকে ৩টি অঞ্চলে ভাগ করা হয়। এসময় সিসিকের ৯টি তদারকি দল কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করে। বর্জ্য অপসারণের পরপর জীবাণুনাশকও ছিটানো হয়।
সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী, প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান, সচিব ফাহিমা ইয়াসমিন, নির্বাহী প্রকৌশলী রুহুল আলম ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা হানিফুর রহমান সহ সকল বিভাগীয় ও শাখা প্রধানগণ বর্জ্য অপসারণ কাজের তরদারকি করেন। বিশেষ করে ওয়ার্ড পর্যায়ে কাউন্সিলরগণ তরদারকি কাজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।
এদিকে সিসিক যখন বর্জ্য অপসারণ ও পরিচ্ছন্নতার কাজ করছিল তখন সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার মীরপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক শেরীন তার মালিকানাধীন আবাসন প্রকল্পের পরিত্যক্ত জায়গায় কুরবানির পশুর চামড়া ডাম্পিং করেন। ফলে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছিল এবং পরিবেশ দূষিত হচ্ছিল।
এলাকাবাসীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নেতৃত্বে পরিচালিত সিসিকের অভিযানকালে এই চামড়াগুলো পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা দক্ষিণ সুরমার কেন্দ্রীয় ডাম্পিং গ্রাউন্ডে সরিয়ে নেন।

Share Button
September 2020
M T W T F S S
« Aug    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930  

দেশবাংলা