NEWSHEAD

দেড়বছর পর জৈন্তাপুরে জগন্নাথপুরের প্রবাসীর মরদেহ উত্তোলন

Published: 04. Dec. 2018 | Tuesday

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী আব্দুল গফুরের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্যে দেড়বছর পর কবর থেকে তোলা হয়েছে।
মৃত মদরিছ আলীর ছেলে আব্দুল গফুর ২০১৭ সালের ৮ মে দেশে ফিরেন; কিন্তু পরদিনই নিখোঁজ হন সিলেটের একটি আবাসিক হোটেল থেকে। অনেক খোঁজাখুঁজির পর তার ভাগনে লালা মিয়া এ বছর ২৬ অক্টোবর জগন্নাথপুর থানায় একটি জিডি করেন।
এই জিডির পরিপ্রেক্ষিতে তদন্তকালে পুলিশ সিলেটের জৈন্তাপুর সাইট্রাস গবেষণা কেন্দ্রের অফিস সহায়ক জগন্নাথপুর উপজেলার ব্রাহ্মণগাঁও গ্রামের মৃত মর্তুজ আলীর ছেলে আবুল কালাম আজাদ, তার জামাতা জৈন্তাপুর দারুস সুন্নাহ্ দাখিল মাদরাসার শিক্ষক কুমিল্লার হোমনা উপজেলার দত্তেরকান্দি গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে আনোয়ার হোসেন ও জৈন্তাপুর উপজেলার নিজপাট মোকামটিলা গ্রামের ইদ্রিছ আলীর ছেলে জুনাব আলীকে গ্রেফতার করে।
এদিকে বৃহস্পতিবার মরদেহ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের আদেশ দেয় আদালত। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জগন্নাথপুর থানার সেকেন্ড অফিসার হাবিবুর রহমান জানান, আদালতের আদেশে গ্রেফতারকৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী রবিবার দুপুরে জৈন্তাপুর থানার নিজপাট ইউনিয়নের গরিবশাহ মাজার সংলগ্ন কবর থেকে আব্দুল গফুরের মরদেহ তোলা করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খৃস্টফার হিমেল রিছিল, জৈন্তাপুর উপজেলার সহকারী ভুমি কর্মকর্তা মন্তশির হাসান পলাশ, নিজপাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর এলাহী সম্রাট, সদস্য আব্দুল হালিম ও হুমায়ুন কবির খান, জগন্নাথপুর থানার সেকেন্ড অফিসার হাবিবুর রহমান, এসআই মনিরউজ্জামান, জৈন্তাপুর থানার এস আই সুজন কুমার আচার্জ, প্রদীপ দাশ ও আজিজ মিয়া।

Share Button
February 2020
M T W T F S S
« Jan    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  

দেশবাংলা