JUST NEWS
THIS TIME ON EID-UL-AZHA 6 ANIMAL MARKETS HAVE BEEN APPROVED IN SYLHET CITY CORPORATION AREA AND 45 IN DIFFERENT UPAZILAS
সংবাদ সংক্ষেপ
হবিগঞ্জে লায়ন ডিস্ট্রিক্ট পিডিজি ফোরামের খাদ্যসামগ্রী বিতরণ সুনামগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে অর্থ ও ত্রাণসামগ্রী বিতরণ নবীগঞ্জ পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী রাহেল চৌধুরী কারাগারে সিলেটে কৃষকদেরকে এপেক্স ক্লাব অব গ্রীণ হিলসের বীজ প্রদান এরশাদ-আম্বিয়া ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনায় জগদলে ত্রাণ বিতরণ গোয়াইনঘাট উপজেলায় বিদেশ ফাউন্ডেশনের ত্রাণসামগ্রী বিতরণ বিশ্বনাথের দুই ইউনিয়নে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের ত্রাণ বিতরণ এম এ হকের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা বিএনপির দোয়া মাহফিল কান্দিগাঁও ইউনিয়নে সিলেট সদর উপজেলা বিএনপির ত্রাণ বিতরণ এ্যাম্বাসেডর শহিদুরকে মানবাধিকার কমিশন সিলেটের সংবর্ধনা দীঘলবাঁকে ১ হাজার বন্যার্ত পরিবারে মিলাদ গাজীর খাদ্য ও অর্থ বিতরণ নবীগঞ্জে বন্যার্তদের পাশে বাংলাদেশ সৎসঙ্গের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সিলেট-তামাবিল সড়কে মারা গেলো মোটরসাইকেল আরোহী ৩ কিশোর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযানে ৬ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা বাংলাদেশ উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির ত্রাণ বিতরণ আশার আলো যুব কল্যাণ সংঘের উদ্যোগে কর্মশালা অনুষ্ঠিত

দেশে ষষ্ঠ জনশুমারি ও গৃহগণনা শুরু হচ্ছে ১৫ জুন : চলবে এক সপ্তাহ

  • মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক : আগামী ১৫ জুন থেকে দেশে জনশুমারি ও গৃহগণনা শুরু হচ্ছে। চলবে ২১ জুন পর্যন্ত। এবারই প্রথম মাত্র ৩ মাসের মধ্যে খসড়া ও ৬ মাসের মধ্যে চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা হবে।
সোমবার সিলেট বিভাগীয় শুমারি স্থায়ী কমিটির সভায় এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।
সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন, বিভাগীয় কমিশনার ড মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন। বিষয়ভিত্তিক তথ্য উপস্থাপন করেন, সিলেট বিভাগীয় পরিসংখ্যান কার্যালয়ের যুগ্মপরিচালক মুহাম্মদ আতিকুল কবীর। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) জাকারিয়া, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) দেবজিৎ সিনহা, সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ, সিলেটের জেলা প্রশাসক মো মজিবর রহমান, সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো জাহাঙ্গীর হোসেন, হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান, মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান, বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের প্রধান, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তা, সাংবাদিক নেতা এবং দাতা সংস্থা ও এনজিও প্রতিনিধি।
সভায় জানানো হয়, দেশের এই ষষ্ঠ জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২১ সালের ২ জানুয়ারি থেকে ৮ জানুয়ারি হওয়ার কথা ছিল; কিন্তু করোনার কারণে সম্ভব হয়নি।
আরও জানানো হয়, দেশের প্রত্যেক জন ও খানাকে গণনার আওতায় আনা হবে। এ কার্যক্রম সম্পন্ন হবে ৪টি পর্যায়ে। তথ্য সংগ্রহের কাজ সহজ ও নির্ভুল করতে ৮০ থেকে ১২০টি খানার সমন্বয়ে গ্রাম/ মহল্লা ভিত্তিক গণনা এলাকা নির্ধারণ করা হচ্ছে।
এদিকে সিলেট বিভাগের ৪টি জেলাকে ৯টি শুমারি জেলায় ভাগ করা হয়েছে। নিয়োগ করা হয়েছে ৯ জন জেলা শুমারি সমন্বয়কারী ও ৪৩ জন উপজেলা/ থানা শুমারি সমন্বয়কারী। মূল শুমারিতে ২০ হাজার ১৬৬ জন গণনাকারী ও ৩ হাজার ৫৮৬ জন সুপারভাইজার কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবেন। ইতোমধ্যে ২১৪ জন জোনাল অফিসার শুমারির প্রস্তুতিকাজ সম্পন্ন এবং ৫ হাজার ৪৯৫টি মৌজা ম্যাপের মধ্যে গণনা এলাকা চিহ্নিত করেছেন।
সভায় জনশুমারি ও গৃহগণনা কার্যক্রম সফলে সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয়।
উল্লখ্য, স্বাধীন বাংলাদেশে সর্বপ্রথম আদমশুমারি হয় ১৯৭৪ সালে। এরপর আদমশুমারি ও গৃহগণনা হয় ১৯৮১, ১৯৯১, ২০০১ ও ২০১১ সালে। পরবর্তী সময়ে ২০১৩ সালের পরিসংখ্যান আইন অনুযায়ী এর নাম পরিবর্তন করে জনশুমারি ও গৃহগণনা করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More
স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest