JUST NEWS
CORONA UPDATE IN SYLHET DIVISION ON AUGUST 10 : TILL 8 AM SAMPLE TEST SYLHET 111 SUNAMGANJ 0 MOULVIBAZAR 0 HABIGANJ 0>IDENTIFIED SYLHET 8 SUNAMGANJ 0 MOULVIBAZAR 0 HABIGANJ 0<>RATE 07.21<>RECOVERY SYLHET 11 SUNAMGANJ 0 MOULVIBAZAR 0 HABIGANJ 0<>DEATH SYLHET 0
সংবাদ সংক্ষেপ
সিলেটে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব ৯ অ্যাগোডায় চাকরি পেলেন মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির গ্র্যাজুয়েট জ্বালানি তেল ভাড়া ও পণ্যমূল্য বৃদ্ধি : বিএনপির মিছিল শুক্রবার জামালগঞ্জে আলাউদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে শোক দিবসের আলোচনা হবিগঞ্জে ন্যায্য মুজুরির দাবি না মানলে সকল চা বাগান বন্ধের হুুমকি মাসখানেক পরেই সবকিছুই ঠিক হয়ে যাবে : বিদ্যুৎ প্রসঙ্গে পরিকল্পনা মন্ত্রী সিলেটে বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির নির্বাচন শুক্রবার জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সুনামগঞ্জে জাপার মিছিল সমাবেশ হবিগঞ্জে কারবালা স্মৃতির নানা প্রতীকসহ তাজিয়া মিছিল || ‘হায় হোসেন’ ‘হায় হোসেন’ মাতম সিলেটে ১৪ দলীয় জোটের শরিক ৫ দলের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ জ্বালালি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ওয়ার্কার্স পার্টির মানববন্ধন রজব আলী খানের মৃত্যুবার্ষিকীতে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল গোলাপগঞ্জে প্রায় ৬ হাজার পিস ইয়াবা ও সোয়া ২ লাখ টাকাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার মাধবপুরে শ্মশানের রাস্তা জোরপূর্বক বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ নবীগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা সুরঞ্জন দাস ও তার সহধর্মিণীর স্মরণে শোকবই জগন্নাথপুরে কৃষক হত্যা মামলায় ৬ জনের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড

চিকিৎসা অবহেলায় শিশুর মৃত্যুর অভিযোগে বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে মামলা

  • শুক্রবার, ২৮ অক্টোবর, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক : চিকিৎসা অবহেলায় এক শিশুর মৃত্যুর অভিযোগে সিলেট মহানগরীর কুমারপাড়ার মা-মনি হাসপাতালের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।
বৃহস্পতিবার যুগ্ম জেলা জজ ২য় আদালতে মামলাটি (নং-১০/২০১৬ইং) করেন কানাইঘাট উপজেলার উমরগঞ্জ গ্রামের বাসিন্দা দুবাই প্রবাসী শরীফ মিয়ার স্ত্রী হালিমা বেগম। এতে মা-মনি হাসপাতালের চেয়ারম্যান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, নির্বাহী পরিচালক, পরিচালক ও ব্যবস্থাপক সহ মোট ৭ জনকে আসামি এবং ১২৫ কোটি টাকার ক্ষতি পূরণ দাবি করা হয়েছে।
হালিমা বেগম অভিযোগ করেছেন, ২০১৩ সালের ২৮শে অক্টোবর তার ৩ মাস বয়সী শিশুপুত্র আফনান হঠাৎ অসুস্থ হলে মা-মনি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে নেয়ার পর প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ও প্রধান কনসালটেন্ট ডা এম এ মতিন তাকে ভর্তি করার পরার্মশ দেন। এ সময় তিনি শিশুটি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে জানিয়ে তাকে ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিটে রেখে চিকিৎসা দেয়া প্রয়োজন বলে জানান।
এই পরামর্শ অনুযায়ী আফনানকে মা-মনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়; কিন্তু ভর্তির পর ডা এম এ মতিন শিশুটির কোন খোঁজ নেননি এমনকি সেখানে সারারাত তাকে কোন চিকিৎসাও দেয়া হয়নি।
পরদিন সকালে আফনানের অবস্থার অবনতি হলে তার মামা অ্যাডভোকেট রফিক আহমদ ডাক্তার না আসার কারণ জানতে চান। এসময় মা-মনি হাসপাতালের ব্যবস্থাপক জামাল আহমদ জানান, ডা এম এ মতিন রোগী দেখায় ব্যস্ত ছিলেন তবে ঘণ্টা খানেকের মধ্যে চলে আসবেন।
পরবর্তী সময়ে ডা এম এ মতিন এসে শিশুটিকে রাগীব রাবেয়া হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন। অথচ এর আগেই তাকে একটি ইনজেকশন পুশ করার পর সে জোরে শব্দ করতে করতে মারা যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More
স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest