JUST NEWS
SAMMYABADI DAL CENTRAL POLITBURO MEMBER COMRADE DHIREN SINGH PASSED AWAY
সংবাদ সংক্ষেপ
সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে কেউ মাদক ও ব়্যাগিংয়ে জড়ালে কঠোর ব্যবস্থা : উপাচার্য নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটির ভর্তি মেলায় প্রথম দিনেই অভুতপূর্ব সাড়া ইব্রাহিম আলী স্মৃতি মেধাবৃত্তি পরীক্ষার পুরস্কার বিতরণ খুব শিগগির Sammyabadi Dal leader Dhiren Singh is no more সাম্যবাদী দলের কেন্দ্রীয় পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড ধীরেন সিংহ মারা গেছেন : শোক প্রকাশ মাধবপুরে তেলবাহী ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল || রেল লাইনের দুপাশে যানজট সাম্যবাদী দলের কেন্দ্রীয় পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড ধীরেন সিংহ মারা গেছেন বিতর্কিত নতুন পাঠ্যপুস্তক মানুষ গ্রহণ করবে না : হুছামুদ্দীন চৌধুরী ফুলতলী শেখ মনির জন্মদিন উপলক্ষে হবিগঞ্জে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি কর্মগুণে জমির আহমদ মানুষের হৃদয়ে বেঁচে থাকবেন : হাবিব জকিগঞ্জে শুরু হয়েছে বঙ্গবন্ধু মিনি নাইট ফুটবল টুর্নামেন্ট মাহা-সিলেট জেলা প্রেসক্লাব ক্যারমে চ্যাম্পিয়ন আরিফ-আশরাফ Dialogue on Present Situation of Health Services নানা কর্মসূচিতে পালিত হলো সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ মুক্ত দিবস CPB ML leaders met the Chinese ambassador গণচীনের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে সিপিবি এমএল নেতাদের সাক্ষাত

ওসমানীনগরে প্রধান শিক্ষিকা প্রত্যাহারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আবারো ক্লাস বর্জন

  • মঙ্গলবার, ১৬ মে, ২০১৭

ওসমানীনগর প্রতিনিধি : অভিভাবক, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা পরিষদ সদস্য ও শিক্ষার্থীদের সাথে অসদাচরণের অভিযোগে সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার নিজ করনসী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা ফেরদৌসি বেগমের প্রত্যাহার দাবিতে রবিবার থেকে আবারো শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করে যাচ্ছে।
প্রধান শিক্ষিকাকে প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত ক্লাস বর্জন অব্যাহত থাকবে বলে আন্দোলনকারীরা জানিয়েছে।
ইতোমধ্যে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা পরিষদ ও অভিভাবকদের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবর ফেরদৌসি বেগমের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেয়া  করা হলেও এখন পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।
উপজেলা শিক্ষা কার্যালয়, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা পরিষদ ও অভিভাবক সূত্রে জানা যায়, ২ মার্চ বিনা অনুমতিতে একজন মহিলা অভিভাবক ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকার কক্ষে প্রবেশ করায় তার সাথে অসদাচরণ করেন ফেরদৌসি বেগম। এ সময় বিদ্যালয়ের মাসিক সভা চলছিল। এই অভিভাবক তাৎক্ষণিক উপস্থিত ব্যবস্থাপনা পরিষদ সদস্যদের কাছে নালিশ করেন। তারা বিষয়টি সম্পর্কে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকার নিকট জানতে চাইলে তাদের সাথেও অসদাচরণ করেন তিনি। একপর্যায়ে পুলিশও ডেকে আনেন।
এর জের ধরে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা পরিষদ, অভিভাবক ও এলাকাবাসীর সিদ্ধান্তে ৪ মার্চ থেকে ৭ মার্চ পর্যন্ত প্রথম দফায় বিদ্যালয়ের ২৮২ জন শিক্ষার্থী ক্লাসে আসা বন্ধ করে দেয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রাথমিক শিক্ষা দফতরের সংশ্লিষ্ট কর্তা ব্যক্তিরা অভিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকাকে ৭ মার্চ থেকে দীর্ঘ দুই মাসের ছুটি প্রদান ও তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা পুনরায় ক্লাসে ফিরে আসে।
ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা ফেরদৌসি বেগমকে ৮ মে শিক্ষিকা ছুটি শেষে বিদ্যালয়ে যোগদান করায় ১৪ মার্চ থেকে শিক্ষার্থীরা আবার ক্লাস বর্জন শুরু করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More

লাইক দিন সঙ্গে থাকুন

স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest