JUST NEWS
MOBILE COURT OPERATION IN SYLHET TO PREVENT FRAUD AND HUMAN TRAFFICKING BY UNREGISTERED TRAVEL AGENCIES
সংবাদ সংক্ষেপ
লতিফা-শফি চৌধুরী মহিলা ডিগ্রি কলেজে ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত গোলাপগঞ্জ উপজেলার কাওছারাবাদ কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠিত ইসলাম জীবনের সর্বক্ষেত্রে সর্বযুগে আধুনিক : সিলেটে তাফসির মাহফিলে অভিমত ‘একজন মিছবাহ জামাল ও তার মিডিয়া জীবন’ গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান নবীগঞ্জ গোবিন্দ জিউড় আখড়ায় বার্ষিক কীর্তন উৎসব অধিবাসে শুরু ফ্রেন্ডস অব ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন ইউকের ৫৫ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদরাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা আজ অনিবন্ধিত ট্রাভেল এজেন্সির প্রতারণা ও মানবপাচার রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান সম্মিলিত নাট্য পরিষদের বর্ণমালার মিছিলে সিলেটে অমর একুশের মাসকে বরণ স্বরূপ চন্দ্র সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি বাস্তবায়ন কমিটির সভা সিলেট ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠিত শান্তিগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন বিষয়ে অবহিতকরণ সভা হবিগঞ্জে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ বিষয়ে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হবিগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য ওসমানের বরাদ্দ থেকে শীতবস্ত্র বিতরণ বানিয়াচংয়ে এক নৌ পুলিশ সদস্যকে পিটিয়ে হত্যা || ঘাতক গ্রেফতার পুরুষদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নারীরাও গুরুত্বপূর্ণ নেতৃত্ব দিচ্ছেন : বিভাগীয় কমিশনার

একাত্তরের ২১শে নভেম্বর পাকিস্তানি হানাদার মুক্ত হয় সিলেটের জকিগঞ্জ

  • রবিবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৬

শ্রীকান্ত পাল, জকিগঞ্জ : একাত্তরের ২১শে নভেম্বর সিলেটের জকিগঞ্জ পাকিস্তানি হানাদার মুক্ত হয়।
টানা ১২ ঘণ্টা শ্বাসরুদ্ধকর যুদ্ধের মাধ্যমে ভারতীয় মিত্রবাহিনীর সহযোগিতায় মুক্তিযোদ্ধারা জকিগঞ্জ থানা সদর সহ আশেপাশের এলাকা হানাদার মুক্ত করেন।
মুক্তিবাহিনীর স্পেশাল কামান্ডার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মাসুক উদ্দিন আহমদ জানান, সেক্টর কমান্ডার চিত্ত রঞ্জন দত্ত, মিত্র বাহিনীর দায়িত্বপ্রাপ্ত সামরিক কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার ওয়াটকে, কর্নেল বাগচি, জাতীয় সংসদ সদস্য দেওয়ান ফরিদ গাজী, প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য আবদুল লতিফ ও আব্দুর রহিম সহ ভারতের মাছিমপুর সেনানিবাসে জকিগঞ্জকে মুক্ত করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। ঐ পরিকল্পনায় ছিল কিভাবে কুশিয়ারা নদীর ওপারে ভারতের করিমগঞ্জ শহরকে ক্ষতিগ্রস্ত না করে জকিগঞ্জ দখল করা যায় ।
পরিকল্পনা অনুসারে ২০শে নভেম্বর রাতে মুক্তিবাহিনী ও মিত্রবাহিনী ৩টি দলে বিভক্ত হয়ে অভিযান শুরু করে। প্রথম দল লোহার মহলের দিকে এবং দ্বিতীয় দল আমলসিদের দিকে অগ্রসর হয়। মূল দল জকিগঞ্জ কাস্টমঘাট বরাবর করিমগঞ্জ কাস্টম ঘাটে অবস্থান নেয়।
প্রথম ও দ্বিতীয় দল নিজ নিজ অবস্থান থেকে কুশিয়ারা নদী অতিক্রম করে জকিগঞ্জের দিকে অগ্রসর হয়। মুক্তিবাহিনী তিন দিক থেকে ঘিরে ফেলেছে ভেবে পাকসেনারা আটগ্রাম-জকিগঞ্জ সড়ক দিয়ে পালাতে থাকে। এরই মধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় দল ভারত থেকে জকিগঞ্জে পৌঁছে যায়। মূল দল কুশিয়ারা নদী পার হয়ে জকিগঞ্জ শহরে প্রবেশ করে। তখন কাস্টম ঘাটে নদীরচরে পাক সেনাদের বুলেটে শহীদ হন ভারতীয় মিত্রবাহিনীর মেজর চমন লাল ও তার দুই সহযোগী। এ সময় কয়েকজন পাক সেনাকে আটক করা হয়।
এভাবেই মুক্ত হয় জকিগঞ্জ। ভোরে জকিগঞ্জের মাটিতেই প্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উড়িয়ে দেয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More

লাইক দিন সঙ্গে থাকুন

স্বত্ব : খবরসবর ডট কম
Design & Developed by Web Nest