উত্তাল মার্চ : বাংলাদেশের প্রতিটি ঘর পরিণত হতে থাকে একেকটি দুর্ভেদ্য দুর্গে

Published: 08. Nov. 2021 | Monday

৮ মার্চ সোমবার অসহযোগ আন্দোলনে হতাহতের সংখ্যা সম্পর্কে সামরিক আইন কর্তৃপক্ষ একটি প্রেসনোট প্রকাশ করে।
এতে বলা হয়, জাতীয় পরিষদের অধিবেশন স্থগিত ঘোষণায় জনগণের মাঝে স্বতঃস্ফূর্ত ও তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। জনগণ রাস্তায় নেমে আসে এবং শেখ মুজিবুর রহমানের ইচ্ছানুযায়ী ২ মার্চ থেকে পূর্ণ হরতাল পালন করে। সারা প্রদেশে সপ্তাহব্যাপী গোলযোগে ১৭২ জন নিহত ও ৩৫৮ জন আহত হয়।
এদিকে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের পর বাংলাদেশ আরো উত্তাল হয়ে উঠে। মুক্তিযুদ্ধের প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায় সর্বত্র। বাংলাদেশের প্রতিটি ঘর পরিণত হতে থাকে একেকটি দুর্ভেদ্য দুর্গে। এ পরিস্থিতি দেখে পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর মসনদ থরথর করে কাঁপতে শুরু করে।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাজউদ্দিন আহমদ এক বিবৃতিতে ইতিহাস সৃষ্টিকারী বাংলাদেশের জনগণকে অভিনন্দন জানান।
৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু যে কর্মসূচি ঘোষণা করেন তার কোন কোন বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েও তিনি আরেকটি বিবৃতি দেন।
আতাউর রহমান খান, ওলি আহাদ, ছাত্রলীগ, ছাত্র ইউনিয়ন, বিক্ষুব্ধ শিল্পী সমাজ এবং আরো অনেক ব্যক্তি ও সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতি সমর্থন ঘোষণা করে।
ইসলামাবাদ বিমান বন্দরে জুলফিকার আলী ভুট্টো সাংবাদিকদের কাছে বঙ্গবন্ধুর দেয়া শর্তাবলী সম্পর্কে কিছু বলতে অস্বীকৃতি জানান। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর বক্তৃতা ভাল করে পরীক্ষা করে দেখার পরই কিছু বলা যেতে পারে।-আল আজাদ

Share Button
November 2021
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930