উত্তাল মার্চ : ছাত্র ইউনিয়নের উদ্যোগে সিলেট শহরের নাইয়রপুলে শুরু হয় সামরিক প্রশিক্ষণ

Published: 08. Nov. 2021 | Monday

১০ মার্চ বুধবার এক বিবৃতিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেন, বাংলাদেশের জনগণের ইচ্ছাই চূড়ান্ত। তবু জনবিরোধী হটকারী চক্র উন্মত্ত আচরণসহ সমরসজ্জা অব্যাহত রেখেছে। বাংলাদেশের জনগণ জানে, ইতিহাস তাদের পক্ষে। ধ্বংসকারী অস্ত্র যতই সংগ্রহ করা হোক না কেন, কোন শক্তিই তাদের চূড়ান্ত বিজয় রুখতে পারবে না।
এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, ১৯৭০ সালের নির্বাচনে জনগণের রায়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পাকিস্তানের সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসেবে দেশে-বিদেশে স্বীকৃতি লাভ করে আওয়ামী লীগ। বঙ্গবন্ধু সবসময় জনগণের শক্তির উপর বিশ্বাস রাখতেন। তাই জনগণ তার উপর যে দায়িত্ব অর্পণ করেছে তা পালনে তিনি ছিলেন অঙ্গীকারবদ্ধ। এই অঙ্গীকার থেকে তাকে চুল পরিমাণ নড়ানোর শক্তি কারো ছিলনা।
তাই বঙ্গবন্ধু জাতিকে চূড়ান্ত লক্ষ্যের দিকে নেতৃত্ব দানে অটল থাকেন। মানুষও সকল মৃত্যুভয় উপেক্ষা করে রাজপথে অবস্থান নেয়। এমনকি সেনাবাহিনী যাতে বাজার থেকে দ্রব্যসামগ্রী কিনতে না পারে সেজন্যে জনসাধারণ সর্বত্র পাহারার ব্যবস্থা গড়ে তুলে।
এ অবস্থায় সামরিক আইন কর্তৃপক্ষ এক ঘোষণায় জানায়, সেনাবাহিনী বিক্ষুব্ধ জনতার উস্কানি সত্ত্বেও সংযত আচরণ করে চলেছে। এ ধরনের আচরণ নিষিদ্ধ করে ১৪৪ নম্বর সামরিক নির্দেশও জারি করা হয়। জনগণ এই আদেশ অগ্রাহ্য করে চলতে থাকে। বিভিন্ন স্থানে সেনাবাহিনীর সাথে তাদের সংঘর্ষ ঘটে।
নারায়ণগঞ্জ কারাগার থেকে ৪০ জন কয়েদী পলায়ন করে। এ সময় সংঘর্ষে তাদের ১ জন নিহত ও ২৫ জন আহত হয়।
বাংলা জাতীয় লীগের কার্যকরী কমিটির সভায় স্বাধীন বাংলার অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠনের জন্যে বঙ্গবন্ধুর প্রতি আহবান জানিয়ে প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়।
বিকেলে সিলেটে মহিলা পরিষদ একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে।
ছাত্র ইউনিয়নের উদ্যোগে সংগঠনের নেতা আব্দুল মন্নান আপ্তাবের তত্ত্বাবধানে সিলেট শহরের নাইয়রপুলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের অতিথি ভবন (বর্তমানে সিলেট মহানগর পুলিশ সদর দফতর) সংলগ্ন মাঠে সামরিক প্রশিক্ষণ শুরু হয়ে যায়।-আল আজাদ

Share Button
November 2021
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930