উত্তাল মার্চ : কোন বিচারপতি রাজি না হওয়ায় গভর্নর হিসেবে শপথ গ্রহণ হলোনা টিক্কা খানের

Published: 08. Nov. 2021 | Monday

৯ মার্চ মঙ্গলবার এক সরকারি ঘোষণায় বলা হয়, রাষ্ট্রপতি ইয়াহিয়া খান খুব শিগগির ঢাকা আসবেন।
অপর এক ঘোষণায় জানানো হয়, লে জে টিক্কা খানকে ৭ মার্চ থেকে পূর্ব পাকিস্তানের সামরিক শাসক নিয়োগ করা হয়েছে।
আসলে তিনি গভর্নর হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন; কিন্তু হাইকোর্টের কোন বিচারপতি টিক্কা খানকে গভর্নর হিসেবে শপথ গ্রহণ করাতে রাজী না হওয়ায় তাকে সামরিক শাসক পদে বসানো হয়।
অসহযোগ আন্দোলনে তখন উত্তাল রাজপথ। মিছিল আর মিছিল। প্রস্তুতি মুক্তিযুদ্ধের। প্রতিদিনই নতুন নতুন নির্দেশ আসছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষ থেকে। জনগণ সেইসব নির্দেশ পালন করে অসহযোগ আন্দোলনকে এগিয়ে নিতে থাকে চূড়ান্ত লক্ষ্যের দিকে। ফলে পাকিস্তান সরকার প্রায় অস্তিত্বহীন হয়ে পড়ে।
পল্টন ময়দানে এক জনসভায় মাওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী ২৫ মার্চের মধ্যে ৭ কোটি বাঙালির স্বাধীনতার দাবি মেনে নেয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, অন্যথায় বঙ্গবন্ধুর সাথে এক হয়ে সর্বাত্মক সংগ্রাম শুরু করবেন।
তিনি বঙ্গবন্ধুকে উদ্দেশ্য করে বলেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার চেয়ে বাংলার সংগ্রামী বীর হও। আতাউর রহমান খানও এ জনসভায় বক্তব্য রাখেন।
সরকারি প্রেস নোটের সমালোচনা করে অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ এক বিবৃতিতে বলেন, বাংলার জনগণকে স্বাধিকার আন্দোলন থেকে দমিয়ে রাখা যাবে না।
জহুরুল হক হলের ক্যান্টিনে ছাত্রলীগের এক সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বাংলাদেশের জাতীয় সরকার গঠনের আহবান জানিয়ে ‘স্বাধীন বাংলাদেশ ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ’ গঠনসহ স্বাধীন বাংলাদেশ ঘোষণার প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়।
বাংলাদেশে অবস্থানরত বিদেশীরা চলে যেতে শুরু করে। জাতিসংঘ প্রতিনিধিরাও ঢাকা ত্যাগ করেন।-আল আজাদ

Share Button
November 2021
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930