বড়লেখায় আইনজীবী আবিদা সুলতানা হত্যার দায় স্বীকার ইমামের

Published: 01. Jun. 2019 | Saturday

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের বড়লেখায় আইনজীবী আবিদা সুলতানা হত্যারহস্য উদঘাটিত হয়েছে। পুলিশের ১০ দিনের রিমান্ডে থাকা ইমাম তানভীর আলম হত্যার দায় স্বীকার করেছেন।
শনিবার বিকেলে মৌলভীবাজার মডেল থানায় এক প্রেস ব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাশেদুল ইসলাম জানিয়েছেন, মাস দেড়েক আগে থেকে বিভিন্ন কারণে ভাড়াটে ইমাম তানভীর আলমের সাথে ঝগড়া হয় অ্যাডভোকেট আবিদা সুলতানার। এরপর থেকে ইমামকে বাসা ছেড়ে দেওয়ার জন্য চাপ দেন তিনি। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তানভীর আলম তাকে হত্যা করেছেন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, সিমেন্টের পানির ফিল্টারের ঢাকনা দিয়ে অ্যাডভোকেট আবিদা সুলতানার মাথায় আঘাত করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তিনি মারা যান; কিন্তু এই হত্যাকাণ্ডে ইমামের পরিবারের অন্য কেউ জড়িত বলে কোন তথ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তবে তদন্ত চলছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর ঘটনাটি আরো স্পষ্ট হবে। এরই মধ্যে তানভীর আলমের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শ্রীমঙ্গল থেকে আবিদা সুলতানার ব্যবহৃত মুঠোফোন দুটি উদ্ধার করা হয়েছে।
২৬ মে মধ্যরাতে বড়লেখায় পিতার বাড়ি থেকে পুলিশ অ্যাডভোকেট আবিদা সুলতানার মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় বড়লেখা থানায় ইমামকে প্রধান আসামি করে আবিদা সুলতানার স্বামী শরিফুল ইসলাম বসুনিয়া হত্যা মামলা করেন।

Share Button
June 2019
M T W T F S S
« May    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930

দেশবাংলা

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com