খাদিজাদের তালিকা আর যেন দীর্ঘ না হয়

Published: 10. Oct. 2016 | Monday

খাদিজার চিকিৎসা আর বদরুলের শাস্তি ত্বরান্বিত হওয়ার বিচারিক প্রক্রিয়া, একই সাথে একই গতিতে চলুক।
অভিভাবকগণ সচেতন হওয়াও জরুরি, নিজ সন্তান কোথায় যাচ্ছে, কাদের সাথে চলাফেরা করছে, নিয়মের বাইরে কোনো সম্পর্কে অহেতুক জড়িয়ে পড়ছে কি না, কেউ উত্যক্ত করছে কি না-খেয়াল রাখতে হবে নিজ দায়িত্বে।
সাংবাদিক ভাইয়েরা, জাতির বিবেকের দর্পণ আপনারা; সত্য আর ন্যায়ের পথে আপনাদের সাহসী কলম হউক নিরপেক্ষ আর দিবালোকের মতই স্পষ্ট।
এমন জঘন্য কর্মের কর্তাব্যক্তিকে আইনি সহায়তা দেয়ার আগে বিজ্ঞ আইনজীবীগণের বিবেক যেন জেগে উঠে আর ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় একজন আইনজীবীর ভূমিকা কি তা যেন হৃদয়পটে ভেসে উঠে।
সমাজকর্মী ভাইয়েরা, বাংলার মানুষ অন্যায়ের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে জোরালো প্রতিবাদ করে দাবি আদায় করতে জানে; তীব্র প্রতিরোধ গড়ে আগামীতে এমন পৈশাচিক ঘটনা যাতে না ঘটে, ঘটলেও জনতার আদালতে কিভাবে তার শক্ত বিচার হবে, দুষ্টমনওয়ালাদের তা জানান দিতে জানে।
সাধুবাদ আপনাদের প্রয়াসকে।
রাজনীতিবিদ ভাইয়েরা, এরকম একটি স্পর্শকাতর ব্যাপারকে পলিটিক্যাল ইস্যু না হয় নাইবা বানালাম আমরা; দুষ্টের দমনে কি এক হতে পারিনা আমরা?
যে ছেলেটা খাদিজার জীবন বাঁচাল, যে মেয়েটা আন্দোলন করছে বলে হুমকি পেল, বিচার দাবিতে যারা রাস্তায় নেমেছেন, তাদের নিরাপত্তার কথা কি ভাবতে হবেনা একদম-ই?
প্রশাসনের ভাইয়েরা, জনগণ আপনাদের বন্ধু, আপনারাও নিজেকে জনগণের বন্ধু ভাবুন,
ন্যায়বিচারের ঝাণ্ডা উড়ানো বীর সেনানী ভেবে কাজ করুন যাবতীয় অনাচার-অত্যাচার আর অন্যায়ের বিরুদ্ধে-জনগণ আপনাদের সাথে থাকবে।
বদরুলরা কেন বখাটে হবে বা হচ্ছে, কেন পথভ্রষ্ট নষ্ট ছেলেদের খাতায় এদের নাম উঠবে বা উঠছে; কতই বা বয়স বদরুলদের? বেপরোয়া হয়ে উঠার আগে এদেরকে কি আমরা নীতিশিক্ষার মায়াজালে জড়িয়ে সভ্য মানুষের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে পারিনা?
এক বদরুল জেলে বন্দি, আর কি কোনো বদরুল নেই এই দেশে? তাহলে শাস্তিভোগের পাশাপাশি কিংবা অন্যায়কাণ্ড করে ফেলার আগেই বদরুলদের শোধরানোর পন্থা আবিষ্কার কি জরুরি নয়?
মায়াকান্না নয়, চোর পালালে বুদ্ধি বাড়ে; আরেকটা অঘটনের আগে শুভবুদ্ধির দীর্ঘমেয়াদী উদয় খুবই জরুরি। আইনের অনুশাসনের সাথে পাল্লা দিয়ে সামাজিক মূল্যবোধ, সচেতনতা আর বিবেক জাগ্রত করার মিশন এখন সময়ের দাবি।
আইনে একটা কথা আছে, ‘Injustice anywhere is a threat to Justice everywhere.’
তাই ‌’সময়ের এক ফোঁড় অসময়ের দশ ফোঁড়’ হওয়ার আগেই করণীয় ভাবতে হবে আমাদের, খাদিজাদের তালিকা আর যেন দীর্ঘ না হয়।
যাবতীয় অন্যায় নিপাত যাক, বাংলাদেশ হউক সকল বাঙালির নিরাপদ আবাসস্থল।

অ্যাডভোকেট শাকী শাহ ফরিদী : চেয়ারম্যান, শাহ ফাউন্ডেশন।

Share Button
November 2018
M T W T F S S
« Oct    
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930  

দেশবাংলা

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com